মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

এক নজরে রাঙ্গাবালী

এক নজরে রাঙ্গাবালী উপজেলা

০১

অবস্থান

রাঙ্গাবালী উপজেলাটি পটুয়াখালী জেলার সর্বদক্ষিনে বঙ্গোপসাগরের পাদদেশে অবস্থিত। উত্তরে চালিতাবুনিয়া ও আগুনমূখা নদী ও চর বিশ্বাস, পশ্চিমে রামনাবাদ চ্যানেল ও কলাপাড়া উপজেলা পূর্বে চর ফ্যাশন উপজেলার চর কুররী-মুকরী এবং দক্ষিনে বঙ্গোপসাগর।

০২

উপজেলার নামকরনের ইতিহাস

রাঙ্গাবালী উপজেলার নামকরনের সঠিক ইতিহাস জানা যায়নি। তবে কথিত আছে যে, সাগর বক্ষে নতুন বালুচর সৃষ্টির ফলে কালের বিবর্তনে এই বালুচরের বালু লাল  ছিল।  এই  ‘‘লাল’’  শব্দটি আঞ্চলিক ভাষায় ‘’রাঙ্গা’’ নামে পরিচিত। এ থেকে ‘’রাঙ্গাবালি’’ নামের উৎপত্তি। ইতিহাসবেত্তাগন জানান ১৭৮৪ সালে কতিপয় রাখাইন জনগোষ্ঠী আরাকান রাজ্য থেকে পালিয়ে এসে এ অঞ্চলে বসতি স্থাপন করে। তখন থেকে এতদঞ্চলে  জনবসতি শুরু হয়।

০৩

উপজেলার উৎপত্তি

৭ জুন ২০১১ তারিখে নিকারের (ন্যাশনাল ইপপ্লিমেন্টেশন কমিটি ফর এ্যাডমিনিস্ট্রেশন রিফর্ম) ১০৫তম সভায় রাঙ্গাবালী উপজেলার প্রশাসনিক  অনুমোদন হয়। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৩ জুন ২০১১ তারিখে বাংলাদেশ গেজেট প্রকাশিত হয়। শুভ উদ্ধোধন হয় ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১২ খ্রি:

০৪

উপজেলার আয়তন

৪৭০.১২ বর্গ কিঃ মিঃ

০৫

মোট কৃষি জমির পরিমান

৫০,০০০ একর (আনুমানিক)

০৬

মোট অকৃষি জমির পরিমান

৩৫,০০০ একর (আনুমানিক)

০৭

মোট জনসংখ্যা

১,০৪,১২৮ জন (পুরুষঃ ৫৫,০২৭ জন    মহিলাঃ ৪৯,১০১ জন)

০৮

খানার সংখ্যা

১,৬১০১।

০৯

রাখাইন জনসংখ্যা

১০৫ জন (পুরুষ ৬২ জন ও মহিলা ৪৩ জন)।

১০

রাখাইনপাড়া

২ টি (কানকুনি পাড়া ও মিদুর পাড়া ওরফে ছাতিয়ান পাড়া)।

১১

রাখাইন পরিবার

২১ টি।

১২

ইউনিয়ন

০৬ টি।

১৩

ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবন

০৫ টি।

১৪

ইউনিয়ন তথ্য ও সেবা কেন্দ্র

০৬ টি।

১৫

ডাকঘর

০৭ টি।

১৬

ইউনিয়ন কমিউনিটি ক্লিনিক

০৫ টি।

১৭

মৌজা

৫৩ টি।

১৮

গ্রাম

৬৫ টি।

১৯

ইউনিয়ন ভূমি অফিস

০২ টি।

২০

প্রাথমিক বিদ্যালয়

৭১ টি।

২১

মাধ্যমিক বিদ্যালয়

১২ টি।

২২

কলেজ

০৩ টি  (১ টি সরকারি ও ২ টি  স্বীকৃতিপ্রাপ্ত)

২৩

মাদ্রাসা

১১ টি।

২৪

শিক্ষার হার

৩৭.৯%

২৫

পাকা রাস্তা

120 কি.মি. (বিসি 56, এইসবিবি ৩৪ কি.মি , আরসিসি ৩০ কি.মি.)

২৬

কাঁচা রাস্তা

৭05 কিঃ মিঃ।

২৭

গভীর নলকূপের সংখ্যা

১৯৬৫ টি।

২৮

ব্যাংক

০৩ টি।

২৯

এনজিও

১১ টি।

৩০

আবাসন প্রকল্প

০৫ টি।

৩১

আশ্রায়ন

 

৩২

গুচ্ছ গ্রাম

১৫ টি।

৩৩

মসজিদ

৫২ টি।

৩৪

মন্দির

০৭ টি।

৩৫

টাম্পল

০১ টি (রাখাইন)।

৩৬

উল্লেখ যোগ্য নদ-নদী

আগুনমূখা নদী, ডিগ্রি নদী, দারছিড়া  নদী ও বুড়াগৌরাঙ্গ নদী।

৩৭

জলমহাল

৩৫ টি।

৩৮

খেয়াঘাট

১১ টি।

৩৯

লঞ্চঘাট

০৮ টি।

৪০

বাজার

১২ টি।

৪১

পুলিশ স্টেশন

০১ টি ও তদন্ত কেন্দ্র ০১ টি।

৪২

সম্ভাবনাময় স্থান

রাঙ্গাবালী উপজেলার সর্বদক্ষিনে সোনারচর ও  রুপারচর অবস্থিত। একই স্থানে সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত দেখা যায় যা বিশ্বে বিরল। এ অঞ্চলের ম্যানগ্রোভ বন মৌ চাষীদের মধু আহরণের অভয়ারণ্য।

 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter